পিন্টারেস্ট মার্কেটিং কি? কিভাবে করবেন? সম্পূর্ণ বাংলা গাইডলাইন

বর্তমানে ইন্টারনেট এ হাজারো সোশিয়াল মিডিয়া সাইট আছে। তার মধ্যে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম এর মত জনপ্রিয় একটি সোশিয়াল মিডিয়া হল পিন্টারেস্ট। বর্তমানে ওয়েবসাইটে ট্রাফিক জেনারেট করার জন্য থেকে শুরু পণ্য সেল করা। যেকোন সার্ভিস দেওয়ার জন্য এটি অন্যতম মাধ্যম। ঠিক তেমনি আপনার ব্যবসায়ের গ্রোথ করতেও এটি কাজ করবে। আজকের এই আর্টিকেল এ আমরা জানব পিন্টারেস্ট মার্কেটিং কি? কেন করবেন? কিভাবে করবেন? বিস্তারিত।

পিন্টারেস্ট কি?

পিন্টারেস্ট হল ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম এর মত একটি সোশিয়াল মিডিয়া। যেটার মাধ্যমে ভিজু্য়াল কনটেন্ট ব্যবহার করে আপনার ব্যবসাকে সবার মাঝে পৌছাতে পারবেন। কিন্তু দুঃখজনক হল বাংলাদেশে পিন্টারেস্ট ব্লক আছে। ব্যবহার করার জন্য আপনাকে ভিপিএন ব্যবহার করতে হবে।

পিন্টারেস্ট মার্কেটিং কি?

পিন্টারেস্ট ব্যবহার করে মার্কেটিং করে নিজের ব্যবসাকে সবার মাঝে পৌছানো, পণ্যের সেল বৃদ্ধি করা, ওয়েবসাইট এ ট্রাফিক নিয়ে আসা। তাই হল (Pintrest Merketung) পিন্টারেস্ট মার্কেটিং।

পিন্টারেস্ট এ মার্কেটিং কিভাবে করবেন?

পিন্টারেস্ট এ মার্কেটিং করার জন্য প্রথমে আপনাকে একটি একাউন্ট তৈরি করতে হবে।

এখানে দুই ধরনের একাউন্ট তৈরি করা যায়

১. পারসোনাল একাউন্ট

২. বিজনেস একাউন্ট

এখানে যেহেতু আপনি আপনার বিজনেস নিয়ে মার্কেটিং করবেন। তাই আপনাকে বিজনেস একাউন্ট তৈরি করতে হবে। এছাড়া বিজনেস একাউন্ট এ এক্সট্রা অনেক ফিউচার ও পাবেন।

মার্কেটিং করার জন্য যে একাউন্টটা ব্যবহার করবেন সেটা অবশ্যই আপনার ব্যবসার/সার্ভিস প্রতিষ্ঠানের নাম দিয়ে করবেন। যদি কোন নিস নিয়ে কাজ করেন তাহলে সেই নিস এর নাম দিবেন। এরপর সেই প্রোফাইলটাকে যা দেওয়া প্রয়োজন সবকিছু দিয়ে সুন্দর করে কাস্টমাইজ করে নিবেন।

অনেকেই প্রোফাইলটাকে সঠিকভাবে কাস্টমাইজ না করে মার্কেটিং করা শুরু করে দেন৷ এটা সম্পূর্ণ ভুল কাজ। কারণ গ্রাহক যখন আপনার কোন পিন দেখবে এবং কিছু নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিবে তখন সে অবশ্যই বিস্তারিত জানতে প্রোফাইলটি ভিজিট করবে। এজন্য যেকোন কিছুর মার্কেটিং করার আগে আপনাকে সঠিকভাবে প্রোফাইল ঠিক করে নিতে হবে।

এরপর এখানে আপনাকে পিন করতে হবে। এখানে যে পোস্ট গুলো করা সেগুলোকে পিন বলা হয়। এখানে আবার বোর্ড তৈরি করতে পারবেন৷ একটা বোর্ড এ আপনার ইচ্ছামত পিন যুক্ত করতে পারবেন। আপনি চাইলে ঐ বোর্ড এ অন্য কাউকেও যুক্ত করতে। সেও ঐ বোর্ড এ পিন করতে পারে। যেটা আপনার অডিয়েন্স বাড়াতে সাহায্য করবে।

আরো পড়ুনঃ ডিজিটাল মার্কেটিং কি? Digital Marketing bangla guideline

এখানে পিন করার ক্ষেত্রে অবশ্যই ভালো কোয়ালিটির ছবি, ইনফোগ্রাফিক, ব্যবহার করবেন। একটা সার্চেবল কিওয়ার্ড যুক্ত টাইটেল দিবেন। ডেসক্রিপশন এ যা প্রয়োজন তাই লিখবেন। এখানে আপনার মেইন/সাব কিওয়ার্ড গুলো ব্যবহার করবেন এবং বেশি বেশি রিচ পেতে (#) হেসট্যাগ ব্যবহার করবেন।

আপনাকে এভাবে প্রতিনিয়ত পিন করে যেতে হবে৷ আপনার ফলোয়ার বৃদ্ধি করতে হবে। গ্রাহকের সাথে ভালো কানেকশন তৈরি করে নিতে হবে।

আপনার একাউন্ট এর গ্রোথ করতে অন্যান্য সোশিয়াল মিডিয়ায় আপনার একাউন্টটি শেয়ার করুন।

আপনার পণ্য/সার্ভিস রিলেটেড অন্যান্য একাউন্ট গুলো ফলো করুন। তাদেরকে রিকোয়েস্ট করুন আপনাকে ফলো করতে অথবা দেখুন আপনার কম্পিটিটররা কিভাবে তাদের ফলোয়ার গুলো বাড়াচ্ছে।

প্রয়োজনে পিন্টারেস্ট এ পেইড এ্যাড রান করুন।এভাবে আস্তে আস্তে আপনার ভালো একটা কমিউনিটি তৈরি হবে। আপনার গ্রাহক বৃদ্ধি পাবে। আপনার ব্যবসাটা একটা ব্র্যান্ড এ পরিণত হবে। এভাবে আপনি সহজেই পিন্টারেস্ট এ মার্কেটিং করতে পারবেন।

পিন্টারেস্ট মার্কেটিং কেন প্রয়োজন?

একটা ব্যবসায়ের সঠিক কাস্টমার খুজে পেতে আপনাকে যেকোন যায়গায় মার্কেটিং করতে হবে। কারন আপনার গ্রাহক গুলো সবাই শুধুমাত্র একটি সোশিয়াল মিডিয়া ব্যবহার করে না। যার যেটা ভালো লাগে সে সেটাই ব্যবহার করে৷

এছাড়া পিন্টারেস্ট একটা জনপ্রিয় প্লাটফর্ম। যেখানে প্রতিমাসে ৫০০ মিলিয়নের বেশি ব্যবহারকারী আছে। আপনি একবার চিন্তা করেন এতগুলো ব্যবহারকারীর মধ্যে কতজন আপনার কাস্টমার তাকতে পারে। এছাড়া বর্তমান সময় কম্পিটিশনের যুগ। আপনি কোন একদিকে একপা পিছিয়ে গেলে অন্যজন আপনার একপা এগিয়ে যাবে। এছাড়া

পিন্টারেস্টের ৭১% ইউজার হচ্ছেন মহিলা এবং তাদের মধ্য থেকে ৫৮% এর বেশি ব্যবহারকারী তাদের কোন কিছু কিনার জন্য সিদ্ধান্ত নিতে তারা পিন্টারেস্ট কেই ব্যবহার করেন।

ইউএসএ নাগরিকদের মধ্যে যত বাচ্চাকাচ্চারা আছে তার মধ্যে ৪০% বাবারাই পিন্টারেস্ট ইউজ করেন এবং নতুন ঘড়ি, জুয়েলারি এবং ঘরোয়া আসবাবপত্রের আপডেট এর জন্যে পিন্টারেস্টের শরণাপন্ন হন।

আরো পড়ুনঃ ফ্রিলান্সিং কিভাবে শিখবো এবং কিভাবে শুরু করবো? বিস্তারিত

ইউএসএ থেকে যত পিন্টারেস্ট ব্যবহারকারী আছেন, তার মধ্যে ৮৯%ই তাদের পারচেজ ডিসিশন নেন পিন্টারেস্ট থেকে। সুতরাং, আপনি যদি কোন উন্নত বিশ্বের কোন পণ্য বা সার্ভিস নিয়ে কাজ করেন তাহলে পিন্টারেস্ট মার্কেটিং হবে আপনার জন্য সবচেয়ে সেরা মার্কেটিং প্লাটফর্ম।

অন্যদিকে আপনি যদি ব্লগিং বা অ্যাফিলিয়েট নিয়ে কাজ করেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিক এর জন্যও অন্যতম মাধ্যম হতে পারে এই সোশিয়াল মিডিয়াটি। এখন আপনি বুঝতেই পারছেন পিন্টারেস্ট মার্কেটিং কেন প্রয়োজন।

পিন্টারেস্ট এর কিছু সুবিধা

পিন্টারেস্ট এ ভিজুয়াল কনটেন্ট ব্যবহার করা হয়। যারফলে ব্যবহাকারীরা সহজে যেকোন কিছুর প্রতি আগ্রহী হয়। এছাড়া পিন্টারেস্ট এর পিন গুলো সরাসরি গুগলে রেঙ্কিং পায়। এটাও একটা সবচেয়ে বড় সুবিধা। আপনার যদি একটা পিন রেঙ্কিং পায় তাহলে আপনার গ্রাহক এর অভাব হবে না।

পিন্টারেস্ট এর জন্য কিছু টুলস

টুলসের ব্যবহার আমাদের জীবনকে অনেক সহজ করে দেয়৷ টুলস ব্যবহার করে আমরা অনেক কঠিন কাজ সহজ করে থাকি। চলুন জেনে নিন, কিছু গুরুত্বপূর্ণ টুলস নিয়ে।

সোশিয়ল মিডিয়া মেনেজমেন্ট টুলস

Hotsuite

এই টুলটি সোশিয়াল মিডিয়া এর জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয়। এটির মাধ্যমে আপনার পোস্ট গুলো সিডিউল করে রাখতে পারবেন এবং সঠিক সময়ে পোস্ট করতে পারবেন এবং আপনার একাউন্ট এর এনালাইসিস করতে পারবেন।

Sprout Social

এটা আপনাকে সোশিয়াল মিডিয়া নিয়ে অনেক এডভান্স তথ্য দিবে। আপনার এডিয়েন্সরা কি করতেছে, আপনার প্রোফাইল এর বর্তমান অবস্থা, একাউন্ট এর এনালাইটিক্স, এছাড়া আরো অনেক তথ্য জানতে পারবেন যেটা আপনাকে মার্কেটিং এর কাজ গুলো অনেক সহজ করে দিবে।

Canva

এইটা যেকোন ছবি, ইনফোগ্রাফিক, ভিডিও, সোশিয়ল মিডিয়া টেমপ্লেট সবকিছুর জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি টুল। এটা দিয়ে আপনার মার্কেটিং এর জন্য যেকোন ধরনের যেকোন কিছু ইচ্ছামত ভাবে তৈরি করে করে নিতে পারবেন। পিন্টারেস্ট এর ছবি তৈরি করতে এটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

আজকে এই পর্যন্ত, যদি কিছু শিখতে/জানতে পারেন তাহলে অবশ্যই একটা কমেন্ট এবং বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button